Blessings of E-commerce in Bangladesh

আজ আমাদের BDSHOP.com টিম মেম্বারদের জন্য একটি বিশেষ দিন ছিল। যার শুরু ৪ দিন আগে আর আজ তার সুন্দর ও সার্থক একটি পরিসমাপ্তি ঘটলো। ৪ দিন আগে অন্য অনেকদিনের মতই দুপুরের দিকে আমাদের কাস্টমার কেয়ার নাম্বারে একটি কল আসে সৌদি আরব থেকে, কোন এক প্রবাসী ভাই এর। সালাম দিয়ে কথা শুরু করতেই তিনি আমাদের সাইট এর একটি প্রোডাক্ট সম্পর্কে শুধু জানতে চাইলেন স্টক আছে কিনা? যেহেতু আমাদের প্রায় সকল প্রোডাক্ট নিজেরাই স্টক এ রাখি তাই স্টক চেক করেই কনফার্ম করি যে হ্যাঁ স্টক আছে। উনি জানালেন উনি এটি নিতে চান। আমি জিজ্ঞাসা করলাম ডেলিভারি কোথায় নিতে চান? সাধারণত অনেকেই জিজ্ঞাসা করেন ডিসকাউন্ট আছে কিনা, ক্যাশ অন ডেলিভারি আছে কিনা, ফ্রি ডেলিভারি দেয়া যাবে কিনা প্রোডাক্ট এর সাথে পিকচার মিলবে কিনা ইত্যাদি  এরপর  উনি যেটি বললেন তার জন্য মোটেও প্রস্তুত ছিলাম না তিনি জিজ্ঞাসা করলেন আমরা জন্ম দিনের কেক আর ফুল সাপ্লাই দিতে পারবো কিনা? যেহেতু আমরা এই ২ টি প্রোডাক্ট এর একটি সেল করি না তাই প্রথমেই সরি বলে জানাই যে সেটি সম্ভব হবে না।  এরপর তিনি কিছুটা আবেগ নিয়ে বলেই ফেললেন কথাটি কিছুটা এরকম ছিল “ভাই আমি সৌদি থেকে বলছি, ২ তারিখে আমার ছোট বোনের জন্মদিন- আমি দেশের বাইরে থাকি, নিজেতো যেতে পারবনা যদি আপনারা আমাকে একটু হেল্প করেন… (মনে হচ্ছিলো কেঁদেই দিলেন)…একটু থেমে…  আমার খুব ইচ্ছা ছিল তার জন্মদিনে কেক, ফুলের তোরা আর ড্রেস গিফট করবো…… আপনারা কি এব্যাপারে আমাকে একটু হেল্প করবেন?” 

আমার মনে আচমকা কি যেন খেলে গেলো, যেহেতু আমি ৫.৫ বছর দেশের বাইরে ছিলাম তাই তার আবেগটা আমাকে একটু বেশিই টাচ করে ফেলে। আমি সাত পাঁচ না ভেবেই বললাম কিভাবে কি করতে হবে? কি কেক? কত পাউন্ড এর? কোন পিকচার আছে কি? ঠিক এর পর মুহূর্তেই আমি একটি উচ্ছ্বাসের ফোয়ারা শুনতে পেলাম ওপাশ থেকে। উনি বললেন আমি ইমেইল করে দিচ্ছি এখনই আপনার ইমেইল অ্যাড্রেসটি দিন। আপনি দেখে আমাকে একটু জানান কত টাকা লাগবে আর পেমেন্ট কিভাবে করবো? এর পর উনি ইমেইল করে কেক আর ফুলের ছবি  সেন্ড করেন। আমি তাকে আমাদের WhatsApp এ যোগাযোগ ও সকল তথ্য দিতে বলি এবং বাকি টুকু ছিল শুধুই এক প্রবাসী ভাই এর এক বোনের জন্য যা করার তার পক্ষ হয়ে আমরা সেই কাজটি করে দেবার নিখুঁত চেষ্টা ……। 

Birthday Cake in BD

আজ বিকেলে 4.20PM এ আমাদের অফিস থেকে CNG নিয়ে সরাসরি তাদের বাসায় আমাদের এক কলিগ কে পাঠিয়ে দেই এবং সেই ইতিহাসের সুন্দর একটি সমাপ্তি ঘটে। এর পর যখন তাকে জানালাম সকল গিফটগুলো ডেলিভারি করে দেয়া হয়েছে উনি আমাকে যে কত বার, কত ভাবে, কি কি দিয়ে যে ধন্যবাদ দিয়েছেন তার শেষ ছিলনা। তবে উনি যে অনেক এক্সাইটেড ছিলেন সেটি তার টেক্সট এর বানান এর অবস্থা দেখেই কিছুটা আন্দাজ করি। 

দেশের বাইরে থেকে এটি আমাদের BDSHOP.com এ প্রথম অর্ডার নয়। অনেকে অনেক কিছুই অর্ডার করেন তাদের পরিবার পরিজনদের জন্য। আমিও দেশি সাইটগুলোতে অর্ডার করতাম যখন দেশের বাইরে ছিলাম কিন্তু এই অর্ডারটি ছিল সম্পূর্ণ আলাদা। তাই সম্পূর্ণ বিষয়টি নিয়ে আমরা খুবই এক্সাইটেড ছিলাম। 

ই-কমার্স এমন একটি মিডিয়া যার কল্যাণে হাজার হাজার মাইল দুরে থেকেও মানুষ তার পরিবারের কাছে শুধু অকেশনাল গিফট নয় এখন সময় এসেছে এবং আমরাও প্রস্তুত, আপনি চাইলে এখন কাঁচা বাজারও অনলাইন এ এবং দেশের বাইরে থেকেই করতে পারেন। ই-কমার্স  এর কল্যাণে প্রবাসী ভাইদের কষ্টার্জিত টাকা এখন চাইলে আপনার পছন্দের পণ্য, খাবার  বা প্রায় যেকোনো কিছুই কিনতে পারেন এবং সেটি নিরাপদে আপনার প্রত্যাশিত জায়গায় ডেলিভারি পেয়ে যাবেন। তাই আসুন আমরা সকলে মিলে এই সম্ভাবনাময় খাতকে আরেক লেভেল উপরে নিয়ে যাই যেটি শুধু পণ্য কেনাবেচার মধ্যে সীমাবদ্ধ নয় তৈরি হবে মানবিক সম্পর্কেরও। Lets finger crossed and spread the Blessings of E-commerce everywhere!